পৌর নির্বাচনে নৌকা বিরোধিরা মুখোশ উন্মোচন করেছে

p awaনিজস্ব প্রতিবেদক: দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে যারা খাগড়াছড়ি পৌরসভা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় প্রতিক নৌকা ছেড়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন তারা নিজেদের মুখোশ উন্মোচন করেছেন। আজ (শনিবার) সকালে খাগড়াছড়ি পৌর আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বক্তারা বলেন, দলের প্রাণ প্রতীক নৌকা ছেড়ে অন্য প্রতীকে যারা নির্বাচনে অংশ নিয়ে নৌকা প্রার্থীর নিশ্চিত জয় ছিনিয়ে নিয়েছেন তাদের বিষয়ে দলীয় সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে বিবেচ্য হবে। তাদের আর দলের ফেরত আসার সুযোগ নেয়। বক্তারা আরো বলেন, খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা অসম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাস করে দল পরিচালনা করে আসছেন। অথচ নৌকা বিরোধিরা এখন পাহাড়ী-বাঙালি ইস্যু তৈরী করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। এসময় বক্তারা কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপির নেতৃত্বে পৌর আওয়ামীলীগ আগের তুলনায় আরো বেশি গতিশীল দাবী করে পৌর আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মীকে এসকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা ও সর্বদা সজাগ থাকার আহবান জানান। সভায় পৌরসভা নির্বাচনকালে প্রতীক বিরোধি ও বহিস্কারপ্রাপ্তদের বিষয়ে রেজুলেশন প্রণয়ন করা হয়।

খাগড়াছড়ি পৌর আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্য রাখেন জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি ও ষ্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান এড. মহিউদ্দিন কবির। এছাড়া বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য আওয়ামীলীগ নেতা মংশেপ্রু চৌধুরী অপু, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান হেলাল, পৌর আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক, সহ-সভাপতি উমেশ চাকমা, সাংগঠনিক সম্পাদক শিশির দেওয়ান, মোবারক হোসেন খাঁন, কাউন্সিলর অতিশ চাকমা, দপ্তর সম্পাদক বাবুল বিকাশ চাকমাসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের সভাপতি ও সম্পাদকগণ। সভা পরিচালনা করেন পৌর আ’লীগের সাধারন সম্পাদক মো. জাবেদ হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ৮নং পৌর আওয়ামীলীগের মো. মোশাররফ হোসেন।

বর্ধিত সভায় পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.জাবেদ হোসেন বলেন, নির্বাচন আসলে নৌকার বিরোধিতা করবে, নির্বাচন শেষ হলে পাহাড়ী-বাঙালি ইস্যু তৈরি করে যারা দলে আসার চেষ্টা করবে তাদের আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা আর গ্রহণ করবে না। গুটিকয়েক বাঙালির জন্য কোন দলে বাঙালি নেতৃত্ব শূণ্য হবে তা অযৌক্তিক বিধায় কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার এমপির নেতৃত্বে হাজার হাজার পাহাড়ী-বাঙালি নেতাকর্মী কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালনে এখন আগের তুলনায় আরো বেশি ঐক্যবদ্ধ হয়ে কেন্দ্রীয় কর্মসূচি পালনের নজির সৃষ্টি করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*