সততার বিরল দৃষ্টান্তে ভাইবোনছড়ার কেচাক ত্রিপুরা

kachakনিজস্ব প্রতিবেদক: মনের অজান্তে ফেলে আসা জেলা সদরের ভাইবোনছড়া ফরেষ্ট বিটের খোলা  মাঠে কুড়িয়ে পাওয়া গণমাধ্যমকর্মীর দামী ক্যামেরা ফিরিয়ে দিয়ে বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন খাগড়াছতি সদর উপজেলার ভাইবোনছড়া এলাকার কেচাক ত্রিপুরা। জানা গেছে,  শুক্রবার বিকালে বাড়ী থেকে বাজার এলাকায় যাওয়ার সময় বাড়ী সংলগ্ন ভাইবোনছড়া ফরেস্ট বিট অফিসের সামনে খোলা মাঠে একটি ক্যামেরা ব্যাগ দেখতে পান কেচাক ত্রিপুরা। যা শনিবার বিকালে ক্যামেরার মালিক দৈনিক খবর পত্রিকার পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি মুহাম্মদ সাজুর হাতে হারিয়ে যাওয়া ক্যামেরা তুলে দেন।

দৈনিক খবর পত্রিকার পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধি মুহাম্মদ সাজু জানান, শুক্রবার বিকালের দিকে ভাইবোনছড়া মৌজার সাপুরাম রোয়াজার বাড়ীর প্রাঙ্গনে বৈসাবি উপলক্ষে ত্রিপুরা সম্প্রদায়ের গরয়া নৃত্য সংক্রান্ত সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে ভাইবোনছড়া ফরেষ্ট বিটের কার্যালয়ের অফিসের ছবি তোলার পর খাগড়াছড়িতে ফিরে আসেন। পরে রাতে বাড়ীতে ফেরার পর ক্যানন ডিএসএলআর মডেলের ক্যামেরাটি মোটর সাইকেল’র নির্দিষ্ট স্থানে  না পেয়ে রাতে ও শনিবার সকাল থেকে সারাদিন ক্যামেরার খোঁজ নেন। পরিচিত ও বৈঠকস্থান সমূহের সবকটি স্থানে ক্যামেরার কোন খোঁজ না পেয়েঁ এক পর্যায়ে নিরাশ হওয়ার পর হঠাৎ ভাইবোনছড়া এলাকার কেচাক ত্রিপুরা ক্যামেরাটি এসে হাতে তুলে দিলে প্রাণভরে স্বস্থি ফিরে আসে। এর আগেও মনের অজান্তে বিভিন্ন  স্থানে মুঠোফোন ফেলে আসলেও তা আর ফিরে আসেনি।  তিনি কেচাক কুমারের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, দামী ডিএসএলআর মডেলের ক্যামেরাটি মালিককে নিজ প্রয়াসে মালিকের খোজ করে মালিকের হাতে ক্যামেরাটি ফেরত দিয়ে সততার বিরল দৃষ্টান্ত করলেন কেচাক কুমার ত্রিপুরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*