শিক্ষাবান্ধব পাজেপ চেয়ারম্যানের এক প্রশ্নের উত্তর দিয়ে নগদ পুরস্কৃত এক শিক্ষার্থী

hhhrtনিজস্ব প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের শিক্ষাবান্ধব চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীর  এক প্রশ্নের উত্তর দিয়ে নগদ অর্থ পুরস্কৃত হলেন মাটিরাঙা পাইলট মডেল হাইস্কুলের এক শিক্ষার্থী। গতকাল (বুধবার) বিদ্যালয়ের ২০১৭ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে এই পাঠ্যবইয়ের বাহির থেকে সাধারন জ্ঞান ভিত্তিক প্রশ্নের উত্তরদাতা  শিক্ষার্থীকে নগদ অর্থ পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।
তিনি বলেন, শুধু পাঠ্যবইয়ের শিক্ষা নিয়ে জিপিএ-৫ পেলে হবে না। সকল বিষয়ে জানতে হবে। বিশেষ করে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের আতœজীবনী, বাংলাদেশের স্বাধিনতার প্রকৃত ইতিহাস এবং বড় বড় লেখকদের লেখাগুলো শিক্ষার্থীদের জানতে হবে। বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের মাধ্যমে বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত করতে সক্ষম হয়েছে। হাতের মুঠো মোবাইলের মাধ্যমে শুধু ফেইসবুকে লাইক/কমেন্টস দেয়া পরিহার করে গুগলের মাধ্যমে জ্ঞানার্জনের জন্য প্রধান অতিথি পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ, শিক্ষার জন্য দুয়ারে দুয়ারে যেতে। তাঁরই নির্দেশক্রমে পাহাড়ের প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোগত উন্নয়নে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ, শিক্ষা প্রকৌশল, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডসহ সরকারী বরাদ্দ অব্যাহত রয়েছে। এবছর খাগড়াছড়ি জেলা শিক্ষা ক্ষেত্রে সমতলের ৭টি জেলা থেকে এগিয়ে রয়েছে। আগামীতে আরো বেশি ভাল ফলাফল বয়ে আনতে চেয়ারম্যান হিসেবে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে পাহাড়ে প্রত্যেকের ঘরে ঘরে যেতে মানসিক প্রস্তুত নিয়েছেন বলে তিনি বলেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মাটিরাঙা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান, মাটিরাঙা উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি পৌর মেয়র শামসুল হক, শিক্ষকমন্ডলী, অভিভাবকবৃন্দসহ শিক্ষার্থীরা।
এক প্রশ্নের জবাবে পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেন, যে কোন বিদ্যালয়ে আকস্মিক পরিদর্শনকালে শিক্ষার্থীদের সাধারন জ্ঞান ভিত্তিক প্রশ্ন করা হলে সঠিক উত্তরদাতা শিক্ষার্থীকে সাধ্যমত নগদ পুরস্কৃত করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*