লক্ষীছড়িতে আওয়ামী প্রার্থীদের সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা

up-electionনিজস্ব প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ি জেলায় ইউপি নির্বাচনে ব্যতিক্রমধর্মী ঘটনা সৃষ্টি হয়েছে জেলার লক্ষীছড়ি উপজেলায়। জেলার অন্যান্য উপজেলায় আওয়ামীলীগ, আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে বিএনপির অভিযোগ পাওয়া গেলেও এ উপজেলায় যেন সরকার দলের প্রার্থীরা অসহায়। বৃহস্পতিবার সকালে এ উপজেলার ৩টি ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ প্রার্থীরা আঞ্চলিক দলগুলোর ত্রাসের রাজত্ব কায়েম, প্রচারনায় বাঁধার অভিযোগে এক বিবৃতির মাধ্যমে নির্বাচন বর্জনের  ঘোষনা দেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সকালে নির্বাচন বর্জনকারী সন্ধ্যায় ফের নির্বাচনী প্রচারনায় নেমেছেন। তারা জানান, আঞ্চলিক সংগঠনের ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করায় তারা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে চাহিলেও স্থানীয় সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার নিদের্শনায় নির্বাচন বর্জনের ঘোষনা সন্ধ্যায় বাতিল করেছেন।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, উপজেলার তিনটি ইউনিয়নে মোট চেয়ারম্যান প্রার্থী-১১জন। তন্মধ্যে আওয়ামীলীগ প্রার্থী-৩জন, বিএনপি-২জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী-৬জন। চেয়ারম্যান পদে দুল্যাতলী ইউপি-৪জন, লক্ষ্মীছড়ি ইউপি-৩জন ও বর্মাছড়ি ইউপিতে-৪জন লড়ছেন। এছাড়া সংরক্ষিত ওয়ার্ডে নারী সদস্য-২১জন, সাধারন ওয়ার্ড প্রার্থী-৮১জন, বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় সংরক্ষিত ওয়ার্ডে নির্বাচিত-০১জন ও সাধারন ওয়ার্ডে-০২জন নির্বাচিত। ৩টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা-১৭৩৪৩জন, পুরুষ-৮৯৩৫, মহিলা-৮৪০৮। মোট ভোট কক্ষ-৫৭টি। তন্মধ্যে ১নম্বর লক্ষীছড়ি ইউপিতে মোট ভোটার ৭৮৫২জন, পুরুষ-৪১৩৬জন, মহিলা-৩৭১৬ জন, ভোট কক্ষ-২১টি, এ ইউনিয়নে ৩টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে লড়ছেন-০৯প্রার্থী ও ৯টি সাধারন ওয়ার্ডের প্রার্থী রয়েছেন-২৭জন। ২নম্বর দুল্যাতলী ইউপিতে মোট ভোটার-৪৯২৬, পুরুষ-২৪৫৬জন, মহিলা-২৪৭০জন, ভোট কক্ষ-১৮টি। তিনটি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে লড়ছেন ০৫জন ও সাধারন ৮টি ওয়ার্ডে ২৭জন প্রার্থী রয়েছেন। এ ইউনিয়নে ৩নং সংরক্ষিত আসন হতে কুসুম তারা চাকমা বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হন। এছাড়া ৭নং সাধারন ওয়ার্ড হতে সাধন রঞ্জন চাকমা ও ৯নং ওয়ার্ড হতে বিমল চাকমা নির্বাচিত হয়েছেন। ৩নম্বর বর্ম্মাছড়ি ইউপিতে মোট ভোটার-৪৫৬৫জন, পুরুষ-২৩৪৩জন, মহিলা-২২২২জন, ভোট কক্ষ-১৮টি।তিনটি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে লড়ছেন ০৬জন ও সাধারন ৯টি ওয়ার্ডে লড়ছেন ২৭জন প্রার্থী।

৩টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন- ১নং লক্ষীছড়ি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী- লেলিন চাকমা (নৌকা) ও বিএনপি প্রার্থী-মো. মকবুল আহমেদ (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেন-প্রবীল কুমার চাকমা (আনারস)। ২নম্বর দুল্যাতলী ইউপিতে আওয়ামীলীগ প্রার্থী মো. নুরে আলম (নৌকা), বিএনপি প্রার্থী-পাইচাউ মারমা (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী উচাইপ্রু মারমা(আনারস), ত্রিলন চাকমা (চশমা)এবং ৩নম্বর বর্মাছড়ি ইউনিয়নে আ’লীগ প্রার্থী নীলবর্ণ চাকমা (নৌকা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা হলেন-পাইসুইখই মারমা, সাথোয়াই চৌধুরী ও হরিমোহন চাকমা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*