মঙ্গলবার রামগড় সীমান্তে ভারত-বাংলাদেশের মিলনমেলা

baruniiiনিজস্ব প্রতিবেদক: আগামীকাল ৫এপ্রিল (মঙ্গলবার) ঐতিহ্যবাহী বারুণী স্নানোৎসবকে ঘিরে রামগড় সাবরুম সীমান্তের ফেনী নদীর দুই পারে বসছে বাংলাদেশ-ভারত দুই দেশের নাগরিকদের মিলনমেলা। ব্রিটিশ আমল থেকেই চৈত্রের মধুকৃষ্ণা ত্রয়োদশী তিথিতে প্রতি বছর ফেনী নদীতে বারুণী স্নানে মিলিত হয় দুই দেশের হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষ। এ মেলাকে ঘিরে দুই দেশের মানুষের মধ্যে তৈরি হয় ভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতির মেলবন্ধন। উভয় দেশের হাজার হাজার পুণ্যার্থীর সমাগমে মুখরিত হয়ে উঠবে ফেনী নদী। তারা পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তির জন্য তর্পণ করে এখানে। রামগড় ও সাবরুম অংশে নদীর দুই তীরে দুই দেশের পুরোহিতরা সকালেই বসবেন পূজা-অর্চণার জন্য। পূর্বপুরুষদের আত্মার শান্তি কামনা ছাড়াও নিজের পুণ্যলাভ ও সর্বপ্রকার পাপ ও পঙ্কিলতা থেকে মুক্ত হওয়ার উদ্দেশ্যে ফেনী নদীর বারুণী স্নানে ছুুটে আসেন সনাতন ধর্মাবলম্বী আবালবৃদ্ধবণিতা। এ ছাড়া দুই দেশে অবস্থানকারী আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ করার জন্যও অনেকে দূর-দূরান্ত থেকে এখানে ছুটে আসে। ঐতিহ্যবাহী এ বারুণী মেলা উপলক্ষে বহুকাল থেকেই এই দিনে দুই দেশের সীমান্ত অঘোষিতভাবে কিছু সময়ের জন্য উন্মুক্ত থাকার সুবাদে এপার বাংলার মানুষ ছুটে যায় ওপারের সাবরুম মহকুমা শহরে, আবার ওপারের লোক এসে ঘুরে যায় রামগড়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*