মংসুইপ্রু চৌধুরী’র ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন খাগড়াছড়ি পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী

kongjariনিজস্ব প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য মংসুইপ্রু চৌধুরীর (অপু) ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ  জানিয়েছেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  কংজরী চৌধুরী। সোমবার (২৪জুলাই) তাঁর একান্ত ব্যক্তিগত সহকারী চিংলামং চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিবৃিততে তিনি এ ঘটনায় অবিলম্বে জড়িতদের চিহ্নিত ও গ্রেফতার  পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।
লিখিত বিবৃতিতে পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী আরো বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে দেশে বিশেষ একটি গোষ্ঠী বিভিন্ন ছদ্মাবরণে হত্যা, গুপ্তহত্যা, টার্গেট কিলিং বিদেশী নাগরিক হত্যা, ধর্মীয় উপাসনালয়গুলোতে আক্রমণ ও বোমা হামলার মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি হেয় করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। ধর্মের নামে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসকে উস্কে দিচ্ছে, নিরীহ সাধারণ মানুষকে হত্যা করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে হীন রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। এই অপশক্তি দেশের ক্রমবর্ধমান উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারাকেও ব্যাহত করে দেশে সন্ত্রাসবাদ কায়েম করতে যাচ্ছে।
তিনি আরো বলেন, অতীতের মত তাদের এই অপচেষ্টা পুনর্বার ব্যর্থতায় পর্যবের্সিত হয়ে বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক, প্রগতিশীল, পরমতসহিষ্ণু, উদার, মানবিক ও শান্তিপ্রিয় রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের দরবারে আপন মহিমায় মাথা উচুঁ করে টিকে থাকবে।
বিবৃতিতে পাজেপ-চেয়ারম্যান সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সার্থক উত্তরসূরী গণতন্ত্রের মানসকন্যা, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জনে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়েছেন।
প্রসঙ্গত: গত ২৩ জুলাই ২০১৬ (রবিবার) বিকাল সাড়ে তিনটার সময় পাজেপ  সদস্য মংসুইপ্রু চৌধুরী (অপু)  পাজেপ, খাগড়াছড়ি কার্যালয়ে দাপ্তরিক কাজশেষ করে বাড়ি ফেরার পথে খাগড়াছড়ি বাজার প্রবেশ মুখ পৌর ব্রিজ এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার  শিকার হওয়ার ঘটনায় খাগড়াছড়ি জেলা জুড়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*