বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে ভূষনছড়া গণহত্যার বিচার দাবী

PBSP-31-05-2016পার্বত্যবানী ডেস্ক: বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে ভূষনছড়া গণহত্যার বিচার দাবী জানিয়েছে পার্বত্য বাঙ্গালী সংগ্রাম পরিষদ এবং সংগ্রাম পরিষদের নেতৃত্বাধীন সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে প্রেরিত বিবৃতিতে এই গণহত্যার দাবী জানান।

প্রেরিত বিবৃতিটি হুবহু তুলে ধরা হ’ল:
৩১ মে রাংগামাটি জেলার বরকল থানাধীন ভূষণছড়া ঐতিহাসিক গণহত্যা দিবস। ১৯৮৪ সালের ৩০ মে দিবাগত রাত ৪.০০ ঘটিকা হতে পরদিন ৩১ মে সকাল ৮.৩০ ঘটিকা পর্যন্ত এই সময়ের মধ্যে ভূষণছড়ায় শান্তিবাহিনী কর্তৃক এক গণহত্যা সংঘটিত হয়। ৩১ মে সংঘটিত এ গণহত্যা পার্বত্য চট্টগ্রামের ইতিহাসে এক ভয়াবহ কলংকজনক অধ্যায়ের সূচনা করেছে। মাত্র কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে নির্মম ও নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে চার শতাধিক নিরীহ নিরস্ত্র বাঙ্গালীদেরকে। হামলায় আহত হয়েছে প্রায় সহস্ত্রাধিক মানুষ। পঙ্গুত্ব বরণ করেছে প্রায় শতাধিক মানুষ, নিখোঁজ  রয়েছে আরো তিন শতাধিক বাঙ্গালী আজো যাদের পদচিহৃ পাওয়া যায়নি। আজ হতে ২৯ বৎসর পূর্বে এ গণহত্যায় নিশ্চিহৃ হয়ে গেছে একটি জনপদ। আজ হতে ২৯ বছর আগে রাংগামাটি জেলার বরকল উপজেলার ভূষণছড়া এলাকা সহ পাশ্ববর্তী এলাকার বাঙ্গালী জনগোষ্ঠী এ হামলার শিকার হয়। এই হামলা জার্মানীর নাৎসী বাহিনীকে হার মানিয়েছে। ২৯ বৎসরে এই গণহত্যার তদন্ত ও বিচার অনুষ্ঠিত হয়নি। আজো সেখানে স্বজনরা দাড়িয়ে দাড়িয়ে দীর্ঘ প্রতীক্ষায় বুক ধাপড়িয়ে অশ্র“সিক্ত নয়নে আহাজারী করছে। অথচ হত্যাকারীরা মন্ত্রী, এমপি চেয়ারম্যান সহ সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত হয়ে বহাল তবিয়তে রয়েছেন। এই গণহত্যা কি মানবতা বিরোধী নয় ? এই গণহত্যাতো ১৯৭১ সালে গণহত্যাকে হার মানিয়েছে। আমরা তাদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি।
এই গণহত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন পার্বত্য বাঙ্গালী সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি এড. মো. আবদুল মমিন। গণহত্যায় জড়িতদের বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে আইনের আওতায় এনে সরকারের প্রতি দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*