বান্দরবানে শুরু হয়েছে সেনাবাহিনী ও বিজিবির যৌথ অভিযান।

simantaনিজস্ব প্রতিবেদক: বান্দরবানের থানছি আলীকদম সীমান্তে সন্ত্রাসী তৎপরতা দমন ও মাদকপাচার বন্ধে  শুরু হয়েছে সেনাবাহিনী ও বিজিবির যৌথ অভিযান। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এই অভিযানে অংশ নিয়েছে সেনাবাহিনী, বিজিবি ও পুলিশের প্রায় আড়াইশ সদস্য। সেনাবাহিনীর হেলিকাপ্টার ব্যবহার করা হচ্ছে এই অভিযানে। বান্দরবানের সেনাবাহিনীর রিজিয়ান কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফকরুল আহ্সান জানিয়েছেন, মায়ানমার সীমান্তের সাংঙ্গু মাতামুহুরীর সংরক্ষিত গভীর বনাঞ্চলে দেশী-বিদেশী সন্ত্রাসীদের তৎপরতা ও মাদক চাষ বন্ধ করতেই এই অভিযানটি পরিচালনা করা হচ্ছে। সীমান্তে টানা ১০দিন পর্যন্ত চলবে এই যৌথ অভিযান। ১৪টি ভাগে ভাগ হয়ে যৌথ বাহিনীর সদস্যরা অভিযানে অংশ নিয়েছে। বুধবার বান্দরবান সদর, আলীকদম, বলিপাড়া, রুমা ব্যাটালিয়নগুলো থেকে হেলিকাপ্টারে করে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সীমান্তে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য স্থানীয়দের সহায়তায় সীমান্তে তল্লাশি চালাবে। তবে গত কয়েক বছর ধরে সীমান্তে যৌথ বাহিনীর টানা অভিযান হওয়ায় সীমান্তে মাদক চাষ ও চোরাচালান অনেকাংশে কমে এসেছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ঠরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*