বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতিসত্ত্বার আলোকবর্তিকা: কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

darulনিজস্ব প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটতো না। তিনি বাঙালি জাতিসত্তার আলোকবর্তিকা। আমাদের কাছে এ দিনটি সকলের মিলনের দিন। তিনি বৃহস্পতিবার (১৭ মার্চ) দুপুরে বঙ্গবন্ধুর ৯৭তম জন্মদিবস ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে জেলা শহরের পূর্ব ইসলামপুর দারুল উলুম তা’লিমুল ইসলাম মাদরাসা ও এতিমখানার উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু বাঙালিকে একটি আপন ঠিকানা দিয়েছেন। সকল ধর্ম-বর্ণ-নির্বিশেষে একাত্তর সালে যুদ্ধ করে স্বাধীনতার সূর্য ছিনিয়ে এনেছি। তা রক্ষা করতে নতুন প্রজন্মকে আলোকিত করতে হবে। তাদেরকে এ শিক্ষা দিতে হবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর আসল শক্তি ছিল জনগণ। ১৯৭১ সালে তিনি যখন রেসকোর্স ময়দানে জনসভায় বক্তব্য দিয়েছিলেন তখন সারা বাংলার মানুষের সমর্থন ছিল তার সাথে। অস্ত্র না থাকলেও তিনি জানতেন তার জনগণের মনোবল রয়েছে। তাইতো তিনি যার যা কিছু আছে তা নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়তে বলেছিলেন। তেমনি আমাদেরকেও মানুষের কাছে যেতে হবে। কাছাকাছি থাকতে হবে।’ এসময় তিনি আজকের শিশুদের বঙ্গবন্ধুর চিন্তা-দর্শনে শাণিত করতে অভিভাবক হিসেবে তাদেরকে সঠিক নির্দেশনা দেওয়ার আহবান জানান।

খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার ও প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি মো. মজিদ আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এনায়েত হোসেন মান্নান, জেলা কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সভাপতি মো. আমিন শরীফ, দিঘীনালা উপজেলা আ’লীগের সভাপতি মো. আবুল কাসেম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. রইছ উদ্দিন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব সভাপতি জীতেন বড়ুয়া, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দীন ভূইয়া প্রমূখ।

বিশেষ অতিথি’র বক্তব্যে পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেন,‘বঙ্গবন্ধু শিশুদের অত্যন্ত ভালোবাসতেন। তিনি বাঙালির সকল প্রেরণার উৎস। আমাদের শিশু-কিশোরদের বঙ্গবন্ধুর জীবন দর্শন জানাতে হবে। যাতে ওরা সৎ ও দেশপ্রেমিক সুনাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠে।’ এসময় তিনি এ প্রতিষ্ঠানটির উন্নয়নের জন্য পার্বত্য জেলা পরিষদের পক্ষ হতে উন্নয়ন ঘটানো হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় প্রধান অতিথি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি প্রতিষ্ঠানটির উন্নয়নের জন্য নগদ ১লক্ষ টাকা হস্তান্তর করেন এবং অনুষ্ঠানে সকল বিশেষ অতিথিকে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ হতে সম্মাননা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে খাগড়াছড়ি জেলার পুলিশ সুপার মো. মজিদ আলীর ব্যক্তিগত অর্থায়নে প্রতিষ্ঠানটির শতাধিক এতিম ছাত্র ও শিক্ষকমন্ডলিদের মাঝে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*