পাহাড়ে সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার আন্তরিক: পাজেপ চেয়ারম্যান কংজরী

IMG_5451মুহাম্মদ আবুল কাসেম: খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের মেধাবী শিক্ষার্থীদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার আন্তরিক। তিনি আজ বৃহস্পতিবার সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত আন্ত: প্রাথমিক প্রাথমিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা-২০১৬এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সুপ্ত প্রতিভা বিকাশ ঘটানোর লক্ষ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার রাঙামাটি ও ফেনী জেলার ন্যায় খাগড়াছড়িতেও পিটিআই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র নির্মাণ করেছেন যা অতিশীঘ্রই চালু করা হবে। তিনি এজন্য সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। তিনি আরো বলেন, খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার দুরদর্শী ভূমিকায় বর্তমান সরকার আন্তরিক হয়ে খাগড়াছড়ি জেলার দুর্গম বিদ্যালয়গুলোকে আবাসিক বিদ্যালয়ে রুপান্তরিত করতে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে। তিনি মেধাবীদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের জন্য শিক্ষক,স্কুল পরিচালনা কমিটি ও অভিভাবকদের সমন্বয় রেখে কাজ করার আহবান জানান। খাগড়াছড়ি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের আয়োজনে ও পার্বত্য জেলা পরিষদের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মামুন কবির। বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারন সম্পাদক, প্রেসক্লাব সভাপতি সাংবাদিক জীতেন বড়ুয়া প্রমূখ।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানায়, জেলার ৮টি উপজেলায় ১মস্থান অধিকারীদের নিয়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি হতে শুরু জেলা পর্যায়ে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় ৩০টি ইভেন্টে জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে  উপজেলা হতে ১ম স্থান অধিকারী বিজিত ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ নেয়। জেলা পর্যায়ে ১ম স্থান অধিকারীরা আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন।

বিভাগীয় পর্যায়ে যোগ্যতা অর্জনকারীরা হলেন-

DSC_4455নৃত্য(বালিকা): রামগড় মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী মাসুইনু মারমা, (বালক): দীঘিনালা হাচিনসনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সুজন্ত চাকমা, পল্লীগীতি/লোক গীতি (বালক): মানিকছড়ি বাটনাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সুইচিং চৌধুরী, (বালিকা): খাগড়াছড়ি সদরের পেরাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মানষী বড়ুয়া, দেশাত্ববোধক গান (বালক): মহালছড়ি এপিবিএন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রান্ত বড়ুয়া, (বালিকা): মাটিরাংগা বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চন্দ্রিকা দাস, উপস্থিত বক্তৃতা(বালক): মাটিরাংগা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শাহেদুজ্জামান শান্ত, (বালিকা): খাগড়াছড়ি সদরের পেরাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মানষী বড়ুয়া, একক অভিনয় (বালক): দীঘিনালা উপজেলার সুধীর মেম্বার পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রণবীর ত্রিপুরা, (বালিকা): মহালছড়ি শিশু মঞ্চ এনজি স্কুলের প্রেমা দাশ মনি, শ্রেষ্ঠ কাবশিশু (বালক): মোঃ আবদুর রহিম রাকিব, (বালিকা): খাগড়াছড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মৌরিন রহমান, ১০০ মিটার দৌড় (বালক): খাগড়াছড়ি সদরের জোরমরম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খৈমনি ত্রিপুরা,  (বালিকা): কমলছড়ি হেডম্যান পাঃ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রিমনি ত্রিপুরা, দীর্ঘলাফ (বালক): মাটিরাংঙা ভবানীচরণ রোয়াজা পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ইয়াছিন মিয়া,  (বালিকা): খাগড়াছড়ি সদরের দঃ খবংপড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রত্যাশা চাকমা, উচ্চ লাফ (বালক): খাগড়াছড়ি সদরের জোরমরম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের খৈমনি ত্রিপুরা, (বালিকা): খাগড়াছড়ি সদরের আপার বেতছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিখা চাকমা, ক্রিকেট বল নিক্ষেপ(বালক): মাটিরাঙা গকুলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্বপন ত্রিপুরা,  (বালিকা): মাটিরাঙা উপজেলার আদর্শগ্রাম ইসলাম নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সুখজান আক্তার, অংক দৌড় (বালক): মাটিরাঙা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোঃ আরমান মাহির,  (বালিকা): দীঘিনালা আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সুশ্রুতি চাকমা, আবৃত্তি (বালক): খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার শিশু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রীতম দে,  (বালিকা): খাগড়াছড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তামান্না তাশরীম করবী, চিত্রাংকন(বালক): খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার কুকিছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের টিকু চাকমা, (বালিকা): রামগড় মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জান্নাতুল হুমায়ারা,  ভারসাম্য দৌড় (বালক) পেরাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশান্ত চাকমা,  (বালিকা): রামগড় আফতাব কাদের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আবাইমা মারমা,  মোরগ লড়াই (বালক): রামগড় উপজেলার সোনাই আগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সেমন্ত ত্রিপুরা,  (বালিকা): রামগড় উপজেলার পাতাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের রনিতা ত্রিপুরা।

এদিকে, অনুষ্ঠানে প্রত্যেক ইভেন্টে ২য় ও ৩য় স্থান অধিকারীদের হাতে পুরস্কার ও সনদপত্র বিতরণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*