পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স: বৈষম্যের প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ

pbcpনিজস্ব প্রতিবেদক: পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাঙ্গালীদের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করার অভিযোগে সোমবার সকালে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেছে পার্বত্য বাঙ্গালী সংগ্রাম পরিষদ, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ, পার্বত্য বাঙ্গালী যুব ও শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ সহ অপরাপর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন কেন্দ্রীয় পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মো. জাহিদ হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য বাঙ্গালী সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সভাপতি এডভোকেট মো. আবদুল মমিন, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের সদস্য সচিব মো. মহি উদ্দিন, জেলা ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক এস এম মাসুম রানা, যুগ্ম আহবায়ক জালাল হোসেন, মোক্তাদির হোসেন, রবিউল ইসলাম, যুব সংগ্রাম পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক আলা-আমিন, শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক মো. নজরুল ইসলাম মাসুদসহ পার্বত্য বাঙ্গালী সংগ্রাম পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলন শেষে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহরে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। প্রেস ক্লাব হতে  বিক্ষোভ মিছিলটি জেলা শহরের শাপলা চত্ত্বরে গিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের জেলা আহবায়ক এসএম মাসুম রানা বলেন, আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে অপহৃত মোহাম্মদ হোসেন কে ফেরত না দিলে কঠোর আন্দোলনের কর্মসুচী ঘোষণা করা হবে বলে হুশিয়ারী দেয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ জানান, পার্বত্য চট্টগ্রাম হতে বাঙ্গালীদের সরিয়ে নিতে ইউএনডিপি কর্তৃক অসাংবিধানিক প্রস্তাব, ১৯৮৬ সালের ২৯ এপ্রিলে পার্বত্য চট্টগ্রাম সংগঠিত গণহত্যার তদন্ত ও বিচার অনুষ্ঠিত না হওয়া, মানিকছড়ির আবদুল মতিন হত্যা, বাড়ীঘরে অগ্নিসংযোগ এবং তাহার নাতীকে অপহরণ, রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলার ভাইবোন ছড়া এলাকায় ৪৬৩ বাঙ্গালী পরিবারের ভূমি জবর দখল করার হুমকি ও পাঁয়তারা সর্বোপরি গত ২৮/৪/২০১৬ ইং তারিখে পানছড়ি উপজেলার উল্টাছড়ি ইউনিয়নের বাসিন্দা মোহাম্মদ হোসেনকে অপহরণ ও গুম করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, সংগ্রাম পরিষদের সকল দাবী পূরন করা না হলে এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম হতে ইউএনডিপিকে প্রত্যাহার ও তাদের রাষ্ট্র বিরোধী কার্যক্রম বন্ধ করা না হলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে আন্দোলনের কর্মসূচী দেয়া হবে ।

প্রসংগত: আগামী ৮মে ঢাকার বেইলী রোডস্থ পার্বত্য চট্টগ্রাম কমপ্লেক্স ভবন নির্মানের ভিত্তি প্রস্তুর উদ্বোধণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ লক্ষ্যে গত ৭এপ্রিল পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব বিদুর্ষী চাকমা স্বাক্ষরিত এক আদেশে তিন পার্বত্য জেলা হতে ২শ করে মোট ৬শ জন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টিকে আমন্ত্রণ করার নির্দেশনা দেয়া হয় তিন পার্বত্য জেলা পরিষদকে। প্রধানমন্ত্রীর এমন অনুষ্ঠানে বৃহত্তর বাঙালি জনগোষ্ঠিকে বাদ দিয়ে শুধুমাত্র ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠির লোকজনদের আমন্ত্রণ করার এমন বৈষম্যমূলক আচরণে পাহাড়ের বাঙালি সংগঠনগুলো আন্দোলন চালিয়ে আসছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*