পানছড়িতে মাসিক সভায় মৃত অধ্যক্ষ হাজির! গাফিলাতির চমক দেখালেন শিক্ষা কর্মকর্তা

চমক দেখানিজস্ব প্রতিবেদক: অবিশ্বাস্য হলেও মাসিক সভায় হাজির হলেন পানছড়ি ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মৃত মুহাম্মদ জাকির হোসাইন। এ ঘটনায় যেমনি ‍উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোশারফ হোসেন চমকে দিলেন তেমনি সরকারি দায়িত্ব পালনে কতটুকু গাফিলাতি করেন তা নিজেই ধরা দিলেন। ঘটনাটি নিছক ভুল বলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা বক্তব্য দিলেও তোলপাড় পুরো জেলা। আসলেই কি মৃত অধ্যক্ষ মাসিক সভায় হাজির হলেন! নিশ্চয় নহে। তবে কি করেছেন এ শিক্ষা কর্মকর্তা। জানা যায়, পানছড়ি উপজেলায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ প্রাথমিক ফুটবল টুর্ণামেন্ট সর্ম্পকিত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছয় মাস আগে ওই অধ্যক্ষ মারা গেলেও প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের মাসিক সভায় তাকে উপস্থিত দেখিয়েছেন! এছাড়াও সভার বিবরণীতে বদলিকৃত দুই কর্মকর্তার উপস্থিতি দেখানো হয়েছে। সভার রেজুলেশনে (কার্যবিবরণী) পানছড়ি ইসলামিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মৃত মুহাম্মদ জাকির হোসাইন, বদলি হয়ে যাওয়া মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহাজান মিয়া ও পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সনজিব ত্রিপুরা বিভাগীয় কাজে বাইরে থাকলেও সভায় উপস্থিতি দেখানো হয়। প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন স্বাক্ষরিত রেজুলেশন কপিটি বিভিন্ন দপ্তরে বিতরণ করা হয়। উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শাহাজান কবির শাজু মঙ্গলবার রেজুলেশন কপি হাতে পেয়ে হতভম্ব হয়ে যান। কেননা ৬ মাস আগে অধ্যক্ষ জাকির হোসেন মৃত্যু বরণ করেন। খুলনায় বদলি হয়ে যান মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোশারফ হোসেন  জানান, ভুলবশত: ঘটনাটি ঘটেছে। তবে তিনি সরকারি দায়িত্ব পালনে গাফিলাতির বিষয়টি এড়িয়ে যান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*