দুয়ারে স্বামীহারা: অসহায় ইউপি চেয়ারম্যান!

জ্ঞানরঞ্জননিজস্ব প্রতিবেদক: দুয়ারে স্বামীহারা এক বিধবা নারীর আর্তনাদ। সাহায্যের আবেদন নিয়ে হাজির হলেন নিজ এলাকার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের দুয়ারে। এমন সময় বলে উঠলেন চেয়ারম্যান অসহায়। এ কথা শুধু ক্ষনিক মেয়াদে বলেননি, বরং সেই চেয়ারম্যানই তাঁরই ব্যবহৃত ফেইসবুকে আইডিতে তুলে ধরলেন অসহায়ত্বের কথা। চেয়ারম্যানের অসহায়ত্ব প্রকাশের এ কাহিনী খাগড়াছড়ি জেলা সদরের ৩নং গোলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের। সোমবার দুপুরে পোস্টটি দৃষ্টিগোচর হওয়ার পর চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা জ্ঞানরঞ্জন ত্রিপুরার নিকট জানতে চাহিলে তিনি সাফ সাফ বলেন যে, কি লিখবো বলেন, লেখার আর কিছুই নাই। নির্বাচনের পর হতে ব্যক্তিগত ভাবে সহযোগিতা প্রদান করতে করতে আমি শেষ হয়ে যাচ্ছি। কোন ফান্ড নাই, অথচ দরিদ্র শিক্ষার্থীদের সহযোগিতা, বিপদগ্রস্থদের পাশে দাঁড়ানো, দুর্যোগ মোকাবেলায় তাৎক্ষনিক সহযোগিতা প্রদানসহ স্বামীহারা অবহেলিত নারীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আর্থিক ফান্ডে কোন অর্থ বরাদ্দ পাওয়া যায়নি।

এদিকে, চেয়ারম্যানের অসহায়ত্বের প্রকাশের বিষয়ে একাধিকজন একাধিক মতামত প্রদান করেছেন। জেলার সচেতন মহলের মতে, যেখানে সাধারন মানুষ অসহায় হয়ে এলাকার জনপ্রতিনিধির নিকট কিছু সহযোগিতা চাইতে যাবেন তখন যদি চেয়ারম্যানই অসহায়ত্ব প্রকাশ করেন তাহলে সাধারন দরিদ্র অসহায় মানুষগুলো কার দুয়ারে যাবে ? কিভাবে সরকারের ভিশন অনুযায়ী খাগড়াছড়ি জেলা ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত হবে? বিষয়টি ভাবতে হবে জেলার হর্তাকর্তাদের। স্থানীয়রা খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।

https://web.facebook.com/photo.php?fbid=178677542620762&set=a.127918291030021.1073741828.100014355527419&type=3

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*