দীঘিনালায় পাজেপ, খাগড়াছড়ির জীপেবল সেতু: ২০ গ্রামের স্বপ্ন পূরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: একটি জীপেবল সেতু নির্মাণের মধ্য দিয়ে খাগড়াছড়ির জেলার দীঘিনালা উপজেলার ২০টি গ্রামবাসীর স্বপ্ন পূরণ হয়েছে আজ। মাইনী নদীর ওপর নির্মিত ব্রিজটি উদ্বোধনের ফলে গ্রামে গ্রামে বইছে আনন্দ উল্লাস। দিনটিকে স্মরণ  করে রাখতে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে  আজ বুধবার বিকালে ফিতা কেটে ব্রিজটি উদ্বোধন করেছেন খাগড়াছড়ি জেলার সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা। এসময় উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের শিক্ষাবান্ধব চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, ৩কোটি ৯২লক্ষ ৭৫টাকা ব্যায়ে ২০১০ সালে ব্রিজটির কাজ শুরু করে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ। স্থানীয়রা জানান, ব্রিজটি নির্মাণের ফলে দীঘিনালা সদর উপজেলার সাথে   নারাইছড়ি, বাবুছড়া, বড়াদম, উদালবাগান, নারিকেল বাগান,শান্তিপুর,কবাখালীসহ প্রায় ২০টি প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষের চলাচল, যান চলাচলের সুবিধা হয়েছে। সুবিধা পেয়েছে ওই এলাকার শত শত কৃষক পরিবার।

এদিকে, ব্রিজটি উদ্বোধন উপলক্ষে দীঘিনালা বাজারে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা সভায় অন্যানের মধ্যে উপস্থিতি দীঘিনালা উপজেলা চেয়ারম্যান নব কমল, জোন উপ অধিনায়ক মেজর সাব্বির, পাজেপ সদস্য আশুতোষ চাকমা,শতরুপা চাকমা, দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মো. কাশেম ও খাগড়াছড়ি জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক কে.এম ইসলামই হোসেন।

অপরদিকে, পার্বত্যবাণীকে দেয়া এক প্রতিক্রিয়ায় খাগড়াছড়ি জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক ও স্থানীয় বাসিন্দা কে. এম ইসমাইল হোসেন বলেন, মাইনী নদীর ওপর খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে নির্মিত জীপেবল সেতু এ উপজেলার আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সাধনের পথ সুগম হয়েছে। তিনি খাগড়াছড়ি সাংসদ ও খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের প্রতি এলাকাবাসীর পক্ষে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। এসময় তিনি মেরং ব্রিজটি জনস্বার্থে নির্মাণে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*