খাগড়াছড়ি জেলা কারাগারের নলকূপ থেকে ওঠছে কেরোসিন মিশ্রিত পানি! সুপেয় পানির তীব্র সংকট

‘‘ছবিটি প্রতীকি ছবি হিসেবে ব্যবহার করা হ’ল’’

আবুল কাসেম: খাগড়াছড়ি জেলা কারাগারের সুপেয় পানির একমাত্র ভরসা নলকূপ হতে সপ্তাহ খানেক আগ থেকে উঠছে কেরোসিন গন্ধের পানি ! গভীর নলকূপের স্তর থেকে কেরোসিন গন্ধ পানি ওঠছে নাকি পানি জমানোর পাত্র থেকে কেরোসিনের গন্ধ মিশ্রিত হচ্ছে তা এখনো পরিস্কার না হলেও কারাগারের ‘জেলার’ আবু ফাতাহ দাবি করে জানান, নলকূপটি স্থাপনের পর হতে ভালই সুপেয় পানি ওঠছিল। গত সপ্তাহজুড়ে পানির সাথে কেরোসিনের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। ধীরে ধীরে কেরোসিনের গন্ধ বাড়ছে। যার ফলে কারাগারে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বর্তমানে কারাগারে অবস্থানরত ১৭৩জন কারাবন্দি সুপেয় পানির তীব্র সংকটে দিন কাটাচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে সাজাপ্রাপ্ত আসামী ১৮জন ও মহিলা কারাবন্দি-৩জন।

তিনি আরো জানান, নলকূপ গতবছরে তৎসময়ের ‘জেলারের’ আমলে কারাগারে সুপেয় পানির জন্য কারাগারের ভিতরে উঁচু পাহাড়ের ওপর বোরিং করে গভীর নলকূপটি স্থাপন করা হয়। বিগত ৬-৭মাস যাবত ভালই পানি ওঠছিল। অথচ বিগত ৭দিন ধরে কেরোসিন গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। এ বিষয়ে তিনি বুধবার কারাপরিদর্শনে আসা খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সমাজসেবা কর্মকর্তা ও বেসরকারি প্রতিনিধি সুদর্শন দত্তকে জানিয়েছেন। সুপেয় পানির তীব্র সংকট চলছে দাবি করে তিনি বলেন, বর্তমানে কারাবন্দিরা কেরোসিন গন্ধ পানি পান বন্ধ রেখেছে এবং সাপ্লাই পানি ব্যবহার ও পান করতে বাধ্য হয়েছে। তিনি জেলা প্রশাসকের নির্দেশক্রমে কেন নলকূপের পানিতে কেরোসিনের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে তা খতিয়ে দেখার জন্য খাগড়াছড়ি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলকে চিঠি দেবেন বলে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে খাগড়াছড়ি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলামের নিকট জানতে চাহিলে তিনি জানান, কারা কর্তৃপক্ষ বিষয়টি এ অফিসে লিখিতভাবে জানালে কেন নলকূপের পানি হতে কেরোসিনের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে তা ল্যাবরেটরী টেষ্ট করে জানানো সম্ভব।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক রাশেদুল ইসলাম জানান, জেলা কারাগানের নলকূপে কেরোসিনের গন্ধ পাবার বিষয়টি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলীকে তদন্ত করে দেখার জন্য নিদের্শ দেয়া হয়েছে।

সিভিল সার্জন শওকত মাহমুদ জানান, এ টিউবওয়েলের পানি ব্যবহার করলে কারাবন্ধীরা রোগ আক্রান্ত  হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তাই বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য জেলারসহ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*