খাগড়াছড়িতে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ৬ দফা কর্মসূচি ঘোষণা

পার্বত্যবাণী ডেস্ক: আগামী ৯এপ্রিল স্কুল-কলেজ ও অফিস-আদালতসহ সর্বক্ষেত্রে স্ব স্ব জাতিসত্তার পোশাক পরিধান কর্মসূচিসহ ৬ দফা কর্মসূচি ঘোষণা করেছে পার্বত্য চট্টগ্রামের ৫নারী ৫ নারী সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে জেলা শহরের স্বনির্ভরস্থ ইউপিডিএফ জেলা কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।  সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি নিরূপা চাকমা। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কাজলী ত্রিপুরা, নারী আত্মরক্ষা কমিটির সদস্য সচিব উক্রাচিং মারমা, সাজেক নারী সমাজের তথ্য ও প্রচার সম্পাদক শান্তি দেবী চাকমা ও ঘিলাছড়ি নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সাবেক সভাপতি শান্তি প্রভা চাকমা।

ঘোষিত কর্মসূচি সমূহ হচ্ছে:

আগামী ২৮ এপ্রিল ২০১৭ : পার্বত্য চট্টগ্রামে ধর্ষণের মেডিক্যাল রিপোর্ট প্রদানে সরকারি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবিতে সমাবেশ।
আগামী ১মে ২০১৭: ক্ষুদ্র ঋণের নামে অমানবিক শোষন বন্ধের দাবি, উপযুক্ত কর্ম পরিবেশ নিশ্চিতকরণ, মিল ফ্যাক্টরিতে নারীর নিরাপত্তা, নারী জনপ্রতিনিধিদের অধিকতর উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে যুক্ত করা, বিচার সালিশে তাদের অংশগ্রহণের দাবিসহ ইত্যাদি নানা দাবিতে জনপ্রতিনিধি ও পেশাজীবী সমাবেশ।
আগামী ১ জুন ২০১৭: ‘প্যালেস্টাইন সংহতি দিবস’-এ অংশগ্রহণ করার কারণে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভাপতি নিরূপা চাকমা ও সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বিতীয়া চাকমার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা তুলে নেয়ার দাবিতে আধ ঘন্টা ব্যাপী প্রতীকী রাজপথ অবরোধ/রাজপথে অবস্থান ধর্মঘট।
আগামী ১ মে হতে ১২ জুন পর্যন্ত মাস ব্যাপী গণসংযোগ ও পাড়া-গ্রামে প্রতিবাদী নারী সমাবেশ এবং আগামী ১২ জুন কল্পনা চাকমা অপহরণের বিচারসহ নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ।

লিখিত বক্তব্যে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলা হয়, সামাজিক গণমাধ্যমে খাগড়াছড়ি কলেজের শিক্ষিকা অর্জিতা খীসার বিরুদ্ধে উস্কানীমূলক ভিডিও প্রকাশ করেছে কোনো প্রকার প্রমাণ উপস্থাপন ছাড়াই একটি ভিডিও সামাজিক গণমাধ্যমে প্রকাশ করে বৈসাবি উৎসবকে বানচাল করে দেয়ার জন্য নানা তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে।
সংবাদ সম্মেলন থেকে সাম্প্রায়িক উস্কানীমুক্ত পরিবেশে নিরাপদে বৈসাবি পালন করার জন্য পরিবেশ সৃষ্টি করা, সাম্প্রদায়িক উস্কানিদাতাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা ও ধরপাকড়ের নামে রাতে বিরাতে ঘরবাড়ি তল্লাশি, ছাত্র-যুবকদের আটক-গ্রেফতার বন্ধ করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*