খাগড়াছড়িতে স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:Rafe

আন্তর্জাতিক নারী দিবসের দুই দিনের মাথায় এবার ছাত্রলীগের গণধর্ষনের শিকার হয়েছে খাগড়াছড়ি জেলার দিঘীনালা উপজেলার ১০ম শ্রেণিতে পড়ুয়া (১৫) এক উপজাতীয় স্কুল ছাত্রী। সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার কবাখালীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ কবাখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার হোসেনকে আটক করেছে। দিঘীনালা থানার অফিসার ইনচার্জ সাহাদত হোসেন টিটু জানান, ধর্ষণের দায়ে মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার পূর্ব কাঁঠালতলী থেকে ছাত্রলীগ নেতা শাহরিয়ার হোসেন সোহেলকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে দিঘীনালা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু হয়েছে। মামলা নং-০১, তাং-১০/০৩/২০১৫। গণধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে চিকি-সাধীন।

জানা যায়, ধর্ষিত ঔই স্কুল ছাত্রী বাবুছড়া এলাকার এক স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। সোমবার দীঘিনালা সদরে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে আসে। রাত ১২টার দিকে বান্ধবীর বাসায় ফেরার পথে চার যুবক তাকে ধর্ষণ করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে খাগড়াছড়ি হাসপাতালে প্রেরণ করে।

দীঘিনালা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল মিন্টু জানান, ঘটনার বিবরণ ও ধর্ষিত ছাত্রীর ভাষ্যমতে কবাখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার সোহেলের (২৭) নেতৃত্বে মৎস্যজীবী লীগের সদস্য আমির হোসেন (২৮), সোহাগ মিয়া (৩০) ও সাইফুল ইসাম (২৬) মিলে এ ঘটনা ঘটায়। অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা শাহরিয়ার সোহেলকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অপর তিনজনকে বহিষ্কারের জন্য উপজেলা মৎস্যজীবী লীগকে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের এ সভাপতিকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইকবাল বাহার ও সম্পাদক মংসাপ্রু মারমা। জেলা ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে জানান, ধর্ষনের দায়ে ও দলীয় শৃঙ্খলা ভংগের দায়ে তাকে স্থায়ী ভাবে বহিস্কারের জন্য দিঘীনালা উপজেলা ছাত্রলীগকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতারে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানান।

খাগড়াছড়ি হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার সঞ্জীব ত্রিপুরা জানান, এ ঘটনায় ডাক্তার আব্দুস সামাদকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*