খাগড়াছড়িতে মাদক বিক্রেতার ওপর হামলার ঘটনায় পাহাড়ী-বাঙালি ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: বুধবার বিকালে খাগড়াছড়ি জেলা শহরের সবুজবাগ এলাকায় (অ-উপজাতি ছাত্রাবাস এলাকা) স্থানীয় মাদক সম্রাট জুয়েলের ওপর হামলার ঘটনায় পাহাড়ী-বাঙালীর মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় এলাকায় পাহাড়ী-বাঙালির মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনার খবর পেয়ে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ও সেনাটহল ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে। ঘটনায় আহত মাদকবিক্রেতা জুয়েল গা ঢাকা দেয়। জানা গেছে, মাদকসম্রাট জুয়েল কুমিল্লাটিলা এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে।
স্থানীয় সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন যাবত মাদকসম্রাট জুয়েল ওই এলাকাসহ কলেজ গেইট, মোহাম্মদপুর, সবুজবাগ, উত্তরসবুজ, কুমিল্লাটিলা, সার্কিটহাউসটিলা, টিএন্ডটি টিলাসহ বিভিন্ন এলাকায় যুব সমাজের হাতে মাদক তুলে দিচ্ছেন। আজ বুধবার খবংপড়িয়া এলাকায় মাদক বিক্রয়কালে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের নেতাকর্মীরা  মাদক সম্রাট জুয়েল ও তার সহযোগি লিটনকে হাতে নাতে ধরে উত্তম মধ্যম দিয়ে ছেড়ে দেয়। পরে সবুজবাগ এলাকা হতে বাঙালি যুবকরা পাল্টা আক্রমন চালাতে গেলে পাহাড়ী ছাত্ররা ইটপাটকেল ছুঁড়ে। আধ-ঘন্টাব্যাপী ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ ও সেনা টহল দল পৌছলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।
এদিকে, বাঙালি ছাত্র পরিষদ, খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এস.এম মাসুম রানা পার্বত্যবাণীকে জানান, এ ঘটনায় সংগঠনের কোন নেতাকর্মী জড়িত নহে। তবে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদের নেতাকর্মীরা অ-উপজাতি ছাত্রাবাসে ইট-পাটকেল ছুঁড়ে, বাঙালিদের বসতবাড়ীতে হামলা চালায়। তিনি এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ২নং ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*