আশ্রীতার মৃত্যু ভীতিতে বসত ভিটা হারানোর আশংকায় জালিয়া পাড়ার বয়োবৃদ্ধ রুহুল আমিন

hখাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির সীমান্তবর্তী রামগড় উপজেলার এক আশ্রীতার মৃত্যুভীতি নিয়ে বসত ভিটা হারানোর আশংকায় ভোগছেন ৭০ উর্ধ্ব রুহুল আমিন। নিজ নামে রেজিষ্ট্রি দলিল থাকার পরও আশ্রীতা আরিফের মিথ্যা দাবী ও ক্ষমতার দাপটে  দিশেহারা রুহুল আমিন। এবিষয়ে আদালতের স্মরণাপন্ন হলেও রহুল আমিনকে ভিটেমাটি ছাড়া করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে আশ্রতীতা আরিফ।
স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, ২০০৭ সালে জনৈক অনিল বিকাশ চাকমার নিকট থেকে ১ লক্ষ টাকা দিয়ে সত্তর শতক ৩য় শ্রেণীর জায়গা ক্রয করে নামজারী মামলা নং ৫৪৯/রাম/০৭ইং এবং রেজি: নং ১৬৮৯/১১ মুলে নিজ নামে রেজিষ্ট্রি কওে নেন রুহুল আমিন। সে থেকে ক্রয়কৃত ভ’মিতে বাগ-বাগিচা সৃজন কওে পরিবার পরিজন নিয়া ভোগ দখলে বিদ্যমান আছেন। মো. আরিফ এলাকার ভূমিহীন ও অসহায় এবং একই এলাকার লোক হওয়ার সুবাদে তার জমির কিছু অংশে বাড়ি করে থাকার অনুমতি চাইলে রুহুল আমিন সরল বিশ্বাসে ঘর নির্মাণ করে বসবাস করার জন্য তাকে আশ্রয় দেন। বর্তমানে ভুমির মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় লোভ লালসায় পতিত হইয়া আশ্রিতা মো. আরিফ পুরো সত্তর শতাংশ ভূমি তার দাবী করে সত্তর বছরের অধিক বয়োবৃদ্ধ রুহুল আমিন-কে ভুমিছাড়া করার জন্য নানা ষড়যন্ত্র ও হুমকি দমকি ও মৃত্যু ভীতি দিয়ে আসছে। এ বিষয়ে আশ্রীতা মো. আরিফকে ভুমি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য আদালতে উচ্ছেদ মামলা দায়ের করলে মো. আরিফ ভুমির মালিক রুহুল আমিনের উপর ক্ষিপ্ত হয় এবং তার ঘর-বাড়ি, সৃজিত বাগবাগিচা কেটে ফেলে। রুহুল আমিন তার জমি ছেড়ে দিতে বললে তাকে ও তার পরিবারকে জীবনে শেষ করে ফেলবে বলে ভয় ভীতি ও হুমকি দিয়ে আসছে মো. আরিফ। এ বিষয়ে আদালতে মামলা চলমান থাকলেও আরিফ অদৃশ্য ক্ষমতা বলে রুহুল আমিনকে বসতভিটা ছাড়া করার জন্য পায়তারা করছে। সম্প্রতী রামগড় থানায় এ বিষয়ে রুহুল আমিন বাদী হয়ে এজাহার দাখিল করলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এবং আরিফকে নতুন ঘর-বাড়ি নির্মাণ করতে নিষেধ করলে আরিফ তা তোয়াক্কা না করে ঘর-বাড়ি নির্মাণ কাজ অব্যাহত রেখেছে।
এবিষয়ে রুহুল অভিযোগ কওে বলেন, থানা-পুলিশ ও স্থানীয়দের কাছে বিচার প্রার্থনা করে কোন প্রতিকার পাইনি। আমার বসতভিটা রক্ষায় সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*