আওয়ামীলীগের উন্নয়নে অবিশ্বাসের প্রাচীর ভেঙ্গে পাহাড়ে ফিরেছে শান্তি: এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা

img_8087নিজস্ব প্রতিবেদক: খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার ২৯৮নং সংসদীয় আসনের সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেছেন,  দু’দশকের অশান্ত পাহাড়ে পাহাড়ী-বাঙালির মধ্যে  অবিশ্বাসের প্রাচীর সেই ১৯৯৭সালেই ভেঙ্গে দেয়ায় ও  আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় এবং জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদারতায়  পাহাড়ে এখন শান্তির সু-বাতাস বহিছে।

তিনি আজ (সোমবার) দুপুরে জেলার দীঘিনালার বাবুছড়া ইউনিয়নে সরকারের একাধিক উন্নয়ন কর্মকান্ড উদ্বোধন, ভিত্তিপ্রস্তর পরবর্তী বাবুছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এ কথা বলেন।

বাবুছড়া উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি তরুণ কান্তি চাকমার সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, মিসেস এমপি মল্লিকা ত্রিপুরা, পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য এড.আশুতোষ চাকমা, সতিশ চাকমা,শতরূপা চাকমা, নিগার সুলতানা, দীঘিনালা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মো: আবুল কাশেম, উপজেলা চেয়ারম্যান নব কোমল চাকমা, জেলা যুবলীগের সিনি: সহ-সভাপতি মেহেদী হাসান হেলাল প্রমূখ।

সমাবেশে প্রধান অতিথি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেন, ১৯৯৭ সালের আগের সরকারগুলো পাহাড়রে মূল সমস্যাকে চিহ্নিত করতে ব্যর্থ হওয়ায় জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় এসে পাহাড়ের সমস্যা একটি রাজনৈতিক সমস্যা বলে চিহ্নিত করে ১৯৯৭সালের ২রা ডিসেম্বর ঐতিহাসিক শান্তিচুক্তি সম্পাদন করে পাহাড়ী-বাঙালির মধ্যে অবিশ্বাসের প্রাচীরকে ভেঙ্গে দিয়েছে। এখন আর পাহাড়ে ‘পাহাড়ী-বাঙালি’ বলে কোন বক্তব্য নেই এবং পাহাড়ী-বাঙালি ইস্যুতে রাজনীতি করারও সুযোগ নেই। শান্তিচুক্তিকে বাঁধা গ্রস্ত করতে অনেকে চেষ্টা করলেও সকলের চেষ্টা ও আন্তরিকতা থাকায় তা সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। শেখ হাসিনা পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে উদার হওয়ায় সকল জনগোষ্ঠির আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটেছে।সকল সম্প্রদায়ের স্বার্থ সম্মুনত রেখে পাহাড়ে ভূমি আইন প্রণয়ন করা হয়েছে।

এসময় সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরীকে এ জেলার উন্নয়নের কান্ডারী উল্লেখ করে বলেন, বর্তমান পার্বত্য জেলা পরিষদের দ্বারা সরকার খাগড়াছড়ি জেলায় উন্নয়ন ঘটায় এ জেলায় এখন একটি পর্যটন বান্ধব জেলায় পরিণত হয়েছে। পর্যাপ্ত পরিমাণ উন্নয়ন ঘটিয়ে খাগড়াছড়ি জেলা এখন জাতীয় মূল স্রোতা ধারায় সম্পৃক্ত হয়ে এ জেলা আওয়ামীলীগের দূর্গে পরিচিত লাভ করেছে। তিনি জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আওয়ামীলীগের পতাকাতলে জেলাবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

এর আগে প্রধান অতিথি দীঘিনালার বাবুছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে নিমার্ণাধীন তয় তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর, ২০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বাবুছড়া আর্দশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর,৬০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বাবুছড়া বৌদ্ধনীতি বিহারে ভিক্ষু নিবাস এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন,৮০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বাবুছড়া মূখ উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের উদ্বোধনসহ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*